সংরক্ষণাগার

বিশ্ব সংবাদ

করোনা মোকাবিলায় সফল ভিয়েতনামে প্রথম মৃত্যু

করোনা প্রতিরোধে সফল দেশগুলোর অন্যতম ভিয়েতনাম। ভাইরাসটির সংক্রমণ শনাক্তের ছয় মাসেরও বেশি সময় পর দেশটিতে প্রথমবারের মতো কোভিড-১৯ আক্রান্ত কোনো রোগী মারা গেছে। শুক্রবার দেশটির হোয়াই আন শহরে ৭০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয় বলে এক অনলাইন প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

শুক্রবারই দিনের শেষভাবে ৬১ বছর বয়সী দ্বিতীয় একজন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি মারা গেছে। তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে সাড়ে নয় কোটি মানুষের দেশটিতে স্থানীয়ভাবে কোনো সংক্রমণ ছিল না। এরপর চলতি সপ্তাহের শুরুতে দা নাং নামক এলাকার একটি রিসোর্টে স্থানীয়ভাবে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়।

ভিয়েতনামের স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গতদিন দেশে প্রথমবারের মতো যে দুজন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী মারা গেছে তাদের আগে থেকে স্বাস্থ্যগত সমস্যা ছিল। চীনের প্রতিবেশী দেশ হলেও প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে ভিয়েতনামে এখন পর্যন্ত ৫৪৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

সফর অন্যান্য দেশের মতো করোনা প্রতিরোধে দেশে রোগটির সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার আগেই প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করে ভিয়েতনাম। শুরুতেই প্রায় নিজ দেশের নাগরিকদের দেশে ফেরা ছাড়া সব ধরনের পর্যটকদের জন্য নিজেদের সীমান্ত বন্ধ করে দেয়। যারা দেশে আসে তাদের কোয়ারেন্টাইন ছিল বাধ্যতামূলক।

ফলে প্রাদুর্ভাব শুরু হলেও ভাইরাসটি সফলভাবে প্রতিরোধে বিশ্বজুড়ে ভিয়েতনাম প্রশংসিত হয়। গত এপ্রিলের মাঝামাঝি সময় থেকে দেশটি স্থানীয়ভাবে ভাইরাসটিতে কেউ সংক্রমিত হননি। সময়মতো যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার মাধ্যমে করোনায় বিপর্যস্ত বিশ্বের জন্য রোল মডেল হিসেবে উচ্চারিত হয় ভিয়েতনামের নাম।

কিন্তু চলতি সপ্তাহের শুরুতে দা নাং নামক জনপ্রিয় একটি রিসোর্টে স্থানীয়ভাবে করোনায় সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর উদ্বেগ বাড়তে শুরু করে। কেননা ওই সময় দেশটির হাজার হাজার পর্যটক সেখানে ছিল। তাদের মধ্যে অনেকেই ভাইরাসটির বিস্তার ছড়াতে পারেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বুধবার সম্পূর্ণরুপে লকডাউন ঘোষণা করার আগে সরকার প্রাথমিকভাবে ওই শহরে পর্যটকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এ সপ্তাহের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী জুয়েন জুয়ান ফুক দেশবাসীকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় আমাদের দ্রুততার সঙ্গে কাজ করতে হবে।

মন্তব্য করুন