সংরক্ষণাগার

বিনোদন

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন মাহিয়া মাহি

নিউজ ডেস্ক:সড়ক দূর্ঘটনা বেড়েই চলেছে। প্রতিনিয়তই সড়ক দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে অংখ্য মানুষ। কিছুদিন আগে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী খুরশীদ আলম গুরুতর আহত হয়েছিলেন। এখনো ভুগছেন সেই শিল্পী।

এবার সড়ক দূর্ঘটনার কবলে পড়েছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন তিনি, তবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তার গাড়িটি।

গতকাল সোমবার দুপুরে ভৈরবের বাসস্ট্যান্ড দূর্জয় মোড়ে দূর্ঘটনার মুখোমুখি হন জনপ্রিয় এই নায়িকা।

জানা গেছে, একটি সিনেমার শুটিং করতে ঢাকা থেকে শ্রীমঙ্গল যাচ্ছিলেন। ভৈরবের দূর্জয় মোড়ে ঢাকা-মহাখালীগামী ‘বস পরিবহন’ নামের একটি বাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়ে মাহির প্রাইভেট কারের।

দূর্ঘটনায় মাহিয়ার প্রাইভেট কারের হেডলাইটসহ কারের সামনের কিছু অংশ বেশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। সাথে সাথেই ওখানকার পুলিশের সহযোগীতা নেন মাহি। ভৈরবের পুলিশকে ঘটনাটি অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ‘বস পরিবহন’ এর যাত্রীবাহী বাসটি আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
এ সময় মাহিও তার গাড়ি নিয়ে থানায় উপস্থিত হয়।

ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোখলেছুর রহমান বস পরিবহনের প্রতিনিধি মিজানুর রহমান পাটোয়ারীকে খবর দিয়ে ঘটনা জানিয়ে ক্ষতিপূরন বাবত ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি বলেন, ‘আমি নিজেই আমার গাড়ি ড্রাইভ করেছিলাম। ভৈরব বাসস্ট্যান্ড মোড়ে সিগনালে আমি গাড়িটি থামালে হঠাৎ করে বাসটি আমার গাড়িকে ধাক্কা দেয়। আমার গাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এরচেয়ে বড় দূর্ঘটনা ঘটতে পার তো।

আমি পুলিশে অভিযোগ করি, তারা সহযোগীতা করেছেন। ক্ষতিপূরণও পেয়েছি। এটা বড় কথা নয়, অসেচেতন ভাবে গাড়ি চালানোর জন্য প্রতিনিয়তই প্রাণ দিতে হচ্ছে অনেক মানুষকে। দেশের একজন নাগরিক হিসেবে দূর্ঘটনা মুক্ত রাস্তা চাই আমিও।’

ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোখলেছুর রজমান বলেন, ‘মাহিয়া মাহি দেশের একজন জনপ্রিয় নায়িকা। দূর্ঘটনার পরে তদন্তে প্রমানিত হয় দূর্ঘটনার জন্য দায়ী ‘ঢাকা বস পরিবহন’র বাসটি। ঘটনাটি মীমাংসা হয়েছে। ক্ষতিপূরনের ১৫ হাজার টাকা আলোচনার মাধ্যমে আদায় করে দিয়েছি।’

জানা গেছে, দূর্ঘটনার পর পুলিশকে বিষয়টি জানিয়ে শ্রীমঙ্গলের উদ্দেশ্যে আবারও যাত্রা শুরু করেন মাহি। সোমবার রাত ১০ টায় ঢাকা বস পরিবহন মালিকের কাছে ক্ষতিপূরণ বাবদ ১৫ হাজার টাকা নিয়ে রাতেই নায়িকা মাহির দেয়া বিকাশ নাম্বারে থানা থেকে টাকা পাঠিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন