Archives

খেলাধুলা

সাবেক স্বামীকে তালাক দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছি: তামিমা

সাবেক স্বামীকে তালাক দিয়েই ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেছি: তামিমা

নিউজ ডেস্ক: বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। এখন তার হানিমুনে যাওয়ার সময়। কিন্তু হানিমুনের পরিবর্তে এখন তাকে নববধু তামিমাকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করতে হচ্ছে।

নাসিরের স্ত্রীর সাবেক স্বামী রাকিবের করা মামলা এবং বিভিন্ন অভিযোাগের জবাব দিতে বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় এক হোটেলে এই নবদম্পতি এক সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে নাসিরের স্ত্রী বলেন- ‘আমি আমার আগের স্বামী রাকিবকে ডিভোর্স দিয়ে নিয়ম মেনেই নাসির হোসেনকে বিয়ে করেছি। আমার সাবেক স্বামী যেসব অভিযোগ করছে তার সবই মিথ্যে। কেবলমাত্র আমাকে হয়রানি করার জন্যই এমন ঘটনা ঘটাচ্ছে সে।’

সংবাদ সম্মেলনে নাসির হোসেন বলেন-‘আমি সব জেনে শুনেই তামিমাকে বিয়ে করেছি। ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী আমাদের বিয়ে হয়েছে। তামিমার সাবেক স্বামী এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে আমাদের সুন্দর সময়কে নষ্ট করার অপচেষ্টা চলছে। তামিমা এখন আমার স্ত্রী। আর আমার স্ত্রীর সম্মান কেউ হানি করতে চাইলে আমি নিশ্চয়ই চুপ করে বসে থাকবো না। অবশ্যই আইন সম্মত ব্যবস্থা নেবো।’

ক্রিকেটার নাসিরের স্ত্রী তামিমা জানান- ‘আমার আর নাসিরের যে বিয়ে হচ্ছে সেটা প্রায় বছরখানেক ধরে সবাই জানে। আমার সাবেক স্বামীও সেটাও জানে। কিন্তু তারপরও সে শুধুমাত্র ঈর্ষা পরায়ণ হয়েই এখন এমন আচরণ করছে। আমি তাকে সজ্ঞানে অনেক আগেই তালাক দিয়েছি। সেই তালাকের যথাযথ কাগজপত্রও আছে আমার কাছে। আমার স্বামী হয়তো আমার সুখ দেখতে চায়নি। তাই যে নাসিরের সঙ্গে আমার বিয়ে, রিসেপশান এই অনুষ্ঠানগুলোতে একটা বাধা দেওয়ার জন্য এখন বিভিন্ন ধরনের কাহিনী ফেঁদেছে।’

তামিমা বলেন-সাবেক স্বামীর ঘরে তার একটি আট বছরের মেয়ে আছে। সেই মেয়েটি ২০১৯ সাল পর্যন্ত তার (তামিমার) কাছে থাকতো। তারপরও মেয়ের দাদি হঠাৎ করে একদিন আমাদের না জানিয়ে তাকে নিজের কাছে নিয়ে যান।

সংবাদ সম্মেলনে নাসির হোসেন এবং তামিমার আইনজীবিও উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে তারা তামিমার আগের স্বামীকে দেওয়াকে ডিভোর্সের যথাযথ দলিলাদি সরবরাহ করেন।

এদিকে তামিমার সাবেক স্বামী রাকিব উত্তরা থানায় এর আগে একটি জিডি করেছিলেন। সেই জিডিতে তিনি অভিযোগ করেন, নাসির হোসেন তার বিবাহিত স্ত্রীকে বিয়ে করেছেন! রাকিব তার সেই অভিযোগে স্থির থেকে এখন নাসির এবং তামিমার বিরুদ্ধে মামলাও ঠুকে দিয়েছেন। পুলিশ তার সেই মামলার তদন্ত করছে।

সূত্র: বার্তা২৪.কম

এসএসআর/জামালপুর লাইভ

বার্তা সম্পাদক
%d bloggers like this: