Archives

জামালপুরবকশীগঞ্জ

বকশীগঞ্জে ভূয়া কাজীকে ৬ মাসের কারাদণ্ড, বর ও কনের বাবাকে অর্থদণ্ড

বকশীগঞ্জে ভূয়া কাজীকে ৬ মাসের কারাদণ্ড, বর ও কনের বাবাকে অর্থদণ্ড

রকিবুল হাসান,বকশীগঞ্জ(জামালপুর)প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে নিজ বাড়িতে বাল্যবিবাহ নিবন্ধনের চেষ্টা করায় এক ভূয়া কাজীকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় বরকে ১৫ শ টাকা ও মেয়ের বাবাকেও ১৫ শ টাকা অর্থদন্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার রাত ১১ টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা এ দন্ডাদেশ প্রদান করেন।

জানা যায়, পৌর শহরের মেষের চর গ্রামের রাজুমিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া (১৯) এর সাথে নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের ভাটিয়া পাড়া গ্রামের ইয়াছিন মিয়ার নাবালিকা মেয়ে ও অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ইতি আক্তারের (১৩) বিয়ে ঠিক হয়। দুজনের বয়স কম থাকায় পৌর এলাকার মাস্টার বাড়ি গ্রামের ভূয়া কাজী রফিকুল ইসলাম তার বাড়িতেই গোপনে বিয়ের কার্যক্রম শুরু করেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে বকশীগঞ্জ ইউএনও মুুন মুন জাহান লিজা ও বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট ওই ভূয়া কাজীর বাড়িতে হানা দেয়।

এ সময় বাল্যবিবাহের চেষ্টা করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ভূূয়া কাজী রফিকুল ইসলাম (৫০) কে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ইউএনও মুন মুন জাহান লিজা।

একই সঙ্গে বর রাসেল মিয়াকে ১৫০০ টাকা ও মেয়ের বাবা ইয়াছিন মিয়াকেও ১৫০০ টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। পরে ৩০০ টাকার স্ট্যাম্পে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান বরের বাবা ও মেয়ের বাবা।

এস আর /জামালপুর লাইভ

বার্তা সম্পাদক
%d bloggers like this: