Archives

বিশ্ব সংবাদ

করোনার সংক্রমণ রোধে দিল্লিতে কারফিউ

নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে। প্রতি বছর সাড়ে ৪ লাখ ডলার পেয়ে থাকে বাফুফে। কিন্তু এ বছর নাকি এখনো অনুদান পায়নি। জানা যায়, অর্থ ব্যয়ের সঠিক হিসাব না পেয়ে ফিফা অনুদান বন্ধ রেখেছে। আজ মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) এ ব্যপারে ফিফার সঙ্গে বাফুফের ভার্চুয়াল মিটিং হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে অনুদানের বিষয়ে আলোচনা করা হবে। গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, অর্থনৈতিক বিষয়ে অসন্তুষ্ট ফিফা গত ৩০ মার্চ চিঠি পাঠিয়েছে বাফুফেকে। জানা গেছে, বাফুফের অর্থ বিভাগের প্রধান আবু হোসেনকে বাফুফে হতে কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হয়েছে। বাফুফের কাছে একাধিক প্রতিষ্ঠানের বকেয়া বিল কোটি টাকার ওপর। তবে এ ব্যাপারে বাফুফের পক্ষ থেকে কোন কিছু জানানো হয়ানি।

নিউজ ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় ভারতের রাজধানী দিল্লিতে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন বলা হয়েছে, আজ থেকেই রাত্রিকালীন এই কারফিউ জারি করা হচ্ছে। দিল্লি সরকারকে উদ্ধৃত করে হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত এই বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে।

দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাতের কারফিউ চলাকালে যারা টিকা দিতে যাবেন এবং প্রয়োজনীয় পরিষেবার জন্য চলাচল করবে তাদের ই-পাসের মাধ্যমে অনুমতি দেওয়া হবে।

কারফিউ চলাকালীন সময়ে বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, অন্যান্য চিকিৎসা কর্মী এবং সাংবাদিকদের আইডি কার্ডসহ রাস্তায় বের হতে বলা হয়েছে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই দিল্লিতে বাড়ছে সংক্রমণের হার। ২৯ মার্চ রাজধানীতে সংক্রমণের হার ছিল ২.৭ শতাংশ। আটদিনের মাথায় সেটাই দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে। অথচ দোলের পরদিন করোনার যে সংক্রমণের হার ছিল, তা এক সপ্তাহ আগেও অর্ধেক ছিল। অর্থাৎ গত দু’সপ্তাহে দিল্লিতে করোনার সংক্রমণ রীতিমতো খাড়াভাবে বেড়েছে। সে কারণেই কারফিউ জারির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

দিল্লিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা মোট ৬ লাখ ৭৯ হাজার ৯৬২ জন। আর মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ৯৬ জন। সোমবার নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫৪৮ জন।

বিমানবন্দর, ট্রেন এবং বাস স্টেশনগুলিতে যাতায়াতকারীরা টিকিট দেখাতে পারলে রাস্তায় চলাচলের অনুমতি পাবে।

রাজধানীতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে নতুন করে তীব্র উত্থান শুরু হওয়ার পর থেকে দিল্লি সরকারের এটিই সবচেয়ে কঠিন আদেশ।

দিল্লি সরকার জানিয়েছে, নাইট কারফিউটি প্রয়োজনীয় চলাচল নিয়ন্ত্রণ করার জন্য প্রয়োগ করা হবে। সূত্র: বার্তা২৪.কম

এসএসআর/ জামালপুর লাইভ

বার্তা সম্পাদক
%d bloggers like this: